fbpx

তারুণ্য ধরে রাখতে পরিহার করুন কিছু অভ্যাস

Pinterest LinkedIn Tumblr +

প্রত্যেক মানুষেরই বোধ হয় একটা সময় পর গিয়ে মনে হয়, ইস! বয়সটা যদি আটকে রাখা যেত। কিন্তু সেটা তো আর সম্ভব না। বয়স বাড়বে তার তার নিজস্ব গতিতেই। তবে হ্যা, চাইলে বয়স এক অর্থে আপনি থমকে দিতেও পারেন। ভাবছেন কীভাবে? নিয়মিত ত্বকের যত্ন, পুষ্টিকর খাবার, যথেষ্ট পানি পান করা, পর্যাপ্ত বিশ্রাম, শারীরিক কসরত আর মনে ভরপুর আনন্দ নিয়ে আপনি প্রকৃতার্থে বয়স আটকে রাখতে না পারলেও এক অর্থে বয়সকে আটকে দিতেই পারেন।

শারীরিক সুস্থতা এবং মনের সৌন্দর্যের উপরই নির্ভর করে আপনি কতটা সুখী। সেই সাথে এগুলো আপনাকে তারুণ্য ধরে রাখতেও সাহায্য করবে। অর্থাৎ, বয়স বাড়লেও দীর্ঘ সময় আপনি থাকবেন তরুণ। তবে একটা কথা ঠিক, শরীরের চেয়েও মনের তারুণ্য অনেক বেশি প্রভাব ফেলে এই ক্ষেত্রে। কিন্তু অনেক সময় আমাদের কিছু বাজে অভ্যাসের কারণে বয়স বাড়ার আগেই আমাদের শরীরে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। এতে করে, শরীর খুব দ্রুত যেমন বুড়িয়ে যায়, তেমনি বয়স বেশি হওয়ার আগেই আপনি বৃদ্ধে পরিণত হন।

বিবিএস বাংলার পাঠকদের জন্য আজ থাকছে তারুণ্য ধরে রাখতে কী করণীয়-

দীর্ঘ সময় রোদে থাকা পরিহার করুন  
সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি ত্বকের অসম্ভব ক্ষতি করে। খুব দ্রুতই বুড়িয়ে দেয় ত্বককে। সেই ক্ষতি সাথে সাথে বোঝা না গেলেও বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা ক্রমশ স্পষ্ট হতে শুরু করে। রোদে বেশিক্ষণ থাকলে ত্বক পুড়ে তামাটে তো হয়ে যায়ই, তার সঙ্গে অকাল বার্ধক্যও ছুঁয়ে ফেলে ত্বককে।

খুব গরম বা খুব ঠান্ডা তাপমাত্রা এড়িয়ে চলুন   
অতিরিক্ত গরমই বলুন বা অতিরিক্ত ঠান্ডা, দুইই ত্বক থেকে আর্দ্রতা কেড়ে নিয়ে ত্বককে ক্রমশ শুকনো করে তোলে। তার অনিবার্য ফল ত্বকে সূক্ষ্ম রেখা আকারে দেখা দেয়। তাই চেষ্টা করুন অতিরিক্ত গরম বা ঠান্ডা এড়িয়ে চলতে।

পর্যাপ্ত ঘুমান  
ঘুমানোর সময় আমাদের ত্বক নতুন কোষ তৈরি করে। সারা দিনে ত্বক যতরকম ধকলের মুখোমুখি হয়, তা কাটিয়ে উঠে তরতাজা হতে ঘুমের খুব প্রয়োজন। কিন্তু দিনের পর দিন ঠিকমতো না ঘুমালে একসময় তার প্রভাব ত্বকের উপর পড়তে শুরু করে। পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে শরীরে কর্টিসোল নামে এক ধরনের হরমোন তৈরি হয় যার ফলে ত্বক নির্জীব ও ক্লান্ত দেখায়। তাই, চেষ্টা করুন টানা ৭-৮ ঘন্টা ঘুমানোর।

অতিরিক্ত ধূমপান, মদ্যপান ও সোডাজাতীয় পানীয় থেকে বিরত থাকুন
অ্যালকোহল, সিগারেট ও সোডা ত্বকের আর্দ্রতা শুষে নেয়। ধূমপান বা মদ্যপানের অভ্যেস থাকলে বা প্রতিদিন ঠান্ডা পানীয় খেলে আপনার ত্বক ক্রমশ শুকনো হয়ে যায় এবং দেখা দেয় বলিরেখা।

অতিরিক্ত মেকআপ করা চলবে না
প্রতিদিন দীর্ঘ সময় ধরে চড়া মেকআপের ব্যবহার ত্বকের প্রচণ্ড ক্ষতি করে দেয়। মেকআপের ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ ত্বক শুষ্ক করে দেয়, ফলে ত্বকে সূক্ষ্ম বলিরেখা দেখা দিতে শুরু করে।

মানসিক চাপ কমান
অতিরিক্ত স্ট্রেস ও টেনশনের একাধিক কুপ্রভাব রয়েছে। এর ফলে রক্তচাপ বেড়ে যাওয়া, মুড সুইং, ডিপ্রেশন বা ঘুমের অভাবের মতো নানা উপসর্গ দেখা দেয় যা একসঙ্গে ত্বকের উপর প্রভাব ফেলে ও ত্বক বয়স্ক দেখায়।

Share.

Leave A Reply